দিনাজপুরে স্যাটেলাইট ব্যবসায়ীরা বেপরোয়া ; সরকার হারাচ্ছে লক্ষ লক্ষ টাকা রাজস্ব

0
170
Print Friendly, PDF & Email

নয়ন, দিনাজপুরঃ
দিনাজপুরে স্যাটেলাইট ব্যবসায়ীরা বেপরোয়া; সরকার হারাচ্ছে লক্ষ লক্ষ টাকা রাজস্ব। নিয়মনীতিকে উপেক্ষা করে অত্যন্ত ঝুকিপুর্ণ ভাবে স্যাটেলাইট ব্যবসায়ীরা (ডিস লাইন) বৈদ্যুতিক পোল ব্যবহার করছে। বিদ্যুৎ লাইনের পাশাপাশী ডিস এন্টিনার তারসহ এমপ্লিফায়ার,ডিস এন্টিনাতে ব্যবহার যোগ্য হাইফ্রিকুইনসির যন্ত্রপাতি এতে যে কোন মুহুর্তে ডিসের তার বিদ্যুতায়িত হয়ে বাড়ির টেলিভিশন নষ্ট হতে পারে বা ঘটতে পারে প্রাণহানির মত মর্মান্তিক র্দুঘটনা।
বিদ্যুৎ বিভাগে কিছু অসাধু কর্মকর্তাকে অর্থের বিনিময়ে ম্যানেজ করে ডিস ব্যবসায়ীরা প্রশাসনের নাকের ডগার উপর ব্যবহার করছে বিদ্যুৎ বিভাগের পোল । এর জন্য বিদ্যুৎ বিভাগকে কোন রয়ালিটি বা ভাড়া দেয়া হয় না। তা ছাড়া ডিসের যন্ত্রপাতি ব্যবহার করার কাজে যে বিদ্যুৎ ব্যবহার করা হয় তার জন্য না আছে কোন মিটার বা তার জন্য কোন পরিশোধ করা হয় না কোন বিদ্যুৎ বিল। অথচ টিভিতে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে অর্থ হাতিয়ে নিলেও জমা হয় না সরকারী কোন খাতায় কোন রাজস্ব।
অন্যদিকে সরকার রাজস্ব হারালেও প্রতি মাসের বিদ্যুৎ কর্মকর্তাদের পকেটে চলে যায় এই রাজস্বের বিপুল পরিমাণ অর্থ। বিদ্যুৎ বিভাগের প্রতিবন্ধকতা যতগুলি কারণ রয়েছে তার মধ্যে বিনা বিল পরিশোধে ডিস এন্টিনার যন্ত্রপাতি ব্যবহার এর মধ্যে অন্যতম কারণ বলে অভিজ্ঞ মহলের ধারনা। অবিলম্বে বৈদ্যুতিক পোলে ডিস এন্টিনা লাইন ব্যবহারে সুষ্ট ও নিরাপদ নীতিমালা গ্রহণ করে তার পর যৌথ লাইন ব্যবহারে সরকার উদ্যোগ নিবে বলে এমনটি আশা করেন ভুক্তভোগী জনগণ। উল্লেখ্য ডিসের লাইনের বৈদ্যুতিক তার জড়িয়ে টেলিভিশন সর্ট সার্কিট হওয়া ও টেলিভিশনসহ ঘরের আসবাবপত্র পুরে যাওয়ার একাধিক ঘটনা শহরের অনেক এলাকায় ঘটেছে। অন্যদিকে বৈদ্যুতিক তারে কোন দুর্ঘটনা ঘটলে বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের টেলিফোন বরাবরই বন্ধ থাকে।

আপলোড-২৫অক্টোবর, ১২

শেয়ার করুন