ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মিছিল সমাবেশ, বাড়ি ঘরে হামলা ভাংচুর অগ্নিসংযোগ

0
178
Print Friendly, PDF & Email

রুপসীবাংলা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৩ অক্টোবর :
আওয়ামীলীগ দলীয় বিরোধের জের ধরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভপাতি একেএম ইকবাল আজাদ খুন হওয়ার পর আজ মঙ্গলবার পর্যন্ত এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে । মঙ্গলবার সকাল থেকে উপজেলার সকল দোকান পাঠ বন্ধ রয়েছে । বিক্ষুব্ধ জনতা খন্ডখন্ড মিছিল করে ইকবাল আজাদের হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবী জানায়।
সরাইল সদরে বিক্ষুব্ধ জনতা সমাবেশ করে। সকালে প্রতিপক্ষের কয়েকটি বাড়িতে হামলা ভাংচুর অগ্নি সংযোগের ঘটনা ঘটেছে । বিক্ষুব্ধ জনতা আজ সরাইল সদর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ নেতা ইদ্রিস আলীর বাড়িতে আগুন দেয়। এদিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার সহ ম্যাজিস্ট্রেট এর নেতৃত্বে পুলিশ বিডিআর এলাকায় রয়েছে। পুলিশ সুপার জানান, আমরা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছি । এদিকে আজ নিহত ইকবাল আজাদের লাশ ঢাকা থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে আনা হচ্ছে । এখানে নামাজে জানাজা শেষে তাকে দাফন করা হবে । উল্লেখ গত রোববার সন্ধ্যায় আওয়ামীলীগ সহ সভাপতি একেএম ইকবাল আজাদ নিজ দলের লোকদের হামলায় বল্লম বিদ্ধ হয়ে খুন হন । এ ঘটনার পর থেকে সরাইলে তুমুল উত্তেজনা সৃস্টি হয় সোমবার মহসড়ক অবরোধ সহ প্রতিপক্ষের বাড়িতে হামলা ভাংচুর ও অগ্নি সংযোগের ঘটনা ঘটে । এ ছাড়া ইকবাল আজাদের ঘটনায় তার ভাই জাহাঙ্গীর আজাদ বাদী হয়ে উ্পজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আবদুল হালিম, সাধারণ সম্পাদক হাজী রফিক ঠাকুর , সাংগঠনক সম্পাদক মাহফুজ আলী সহ ২২ জনকে আসামী করে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছে ।
পুলিশ এ ঘটনায় ১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে । এছাড়া সোমবার রাতে জেলা আওয়ামীলীগের এক জরুরী সভায় সরাইল উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সহ ২২ জনকে বহিষ্কার করা হয়েছে । এছাড়া সরাইলে আওয়ামীলীগ সহ সকল অঙ্গ সংগঠনের কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে বলে দলীয় সূত্র জানিয়েছে |

নিউজরুম

শেয়ার করুন