নওগাঁর পোরশা বিষধর সাপ আতংক

0
143
Print Friendly, PDF & Email

মোফাজ্জল হোসেন, নওগাঁ ২২ অক্টোবর :
অলৈকিক হলেও সত্য নওগাঁর পোরশা উপজেলার কালিকান্দর গ্রামে বিষধর সাপের বিষক্রিয়া আতংকে গ্রামবাসী এখন আতংকিত। ইতোমধ্যে বিষক্রিয়ায় এক শিশুর মৃত্যু হলেও ওই গ্রামের প্রায় দেড় শতাধিক মানুষ বিষক্রিয়ায় আক্রামত্ম হয়ে ওঝাঁর শরনাপন্ন হয়েছেন বলে জানা গেছে। সরেজমিনে উক্ত গ্রামে গিয়ে জানা গেছে, গত ১ অক্টোবর ওই গ্রামের জৈনক কৃষক আব্দুর রশিদের স্কুল পড়ুয়া ছেলে শামিম হোসেন (১৪) কে ধানক্ষেতে ডান হাতে একটি বিষধর সাপ কামড় দেয়। বিষের যন্ত্রনায় সে অসুস্থ হয়ে পড়লে ওঝা কবিরাজ দ্বারা ঝাঁড় ফোঁক করার এক পর্যায়ে শিশুটি মারা যায়। এর পর হতে ওই দিন একই গ্রামের বেশ কয়েকজন মানুষের শরীরে হঠাৎ করে বিষধর সাপের বিষের অসহ্য যন্ত্রনা হতে থাকে।
পর্যায়ক্রমে গত ২১ অক্টোবর পর্যমত্ম ওই গ্রামের নারী-পূরম্নষ ও শিশু সহ প্রায় ১৮০ জন এবং পার্শ্ববর্তী গ্রামের ঘটনা দেখতে আসা আরোও ৫ জন সহ মোট ১৮৫ জন মানুষ বিষক্রিয়ায় আক্রাসত্ম হয় বলে উপজেলার ঘাটনগর ইউনিয়নের ৬নম্বর ওয়ার্ড সদস্য ওই গ্রামের মোঃ ইয়াদ আলী জানান। তিনি আরো ও জানান যে, গ্রামের লোকজনের সেবা করতে করতে তিনি নিজেও বিষক্রিয়ায় আক্রামত্ম হলে ওঝাঁর ঝাঁড় ফোঁকে সেরে ওঠেন।
প্রায় মাসাধিকাল ধরে ওই গ্রামে চিকিৎসারত পার্শ্ববর্তী গ্রামের ওঝাঁ মালেকুল সাংবাদিকদের জানান, উপজেলার মন্ডলিয়া পাড়ার বয়জুদ্দীনের ছেলে ইসরাফিল ওরফে ভোটার শক্রতা করে কালিকান্দর গ্রামে বিষহরি নামের তন্ত্রমন্ত্র করেছে যার ফলে উক্ত গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।
বর্তমানে সে পালাতক রয়েছে। এ বিষয়ে পোরশা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডাঃ আশরাফ এর সাথে ফোনে কথা হলে তিনি জানান যে, এধরনে কোন সংবাদ তিনি এখনও পায়নি। তবে সাপের বিষক্রিয়ায় এক শিশুর মৃত্যুর পর ওই গ্রামের সাধারন মানুষের মনের দুর্বলতার কারনে এধরনে ঘটনা ঘটতে পারে বলে তিনি মমত্মব্য করেন।
বর্তমানে উক্ত গ্রামের অধিকাংশ বাড়ীর গার্জিয়ান তাদের ছেলে মেয়েকে গ্রাম ছেড়ে বিভিন্ন আত্নীয় স্বজনের বাড়ীতে রেখে জীবন যাপন করাচ্ছে বলে গ্রামবাসী জানিয়েছেন। সমসত্ম গ্রামবাসী এখন ভূতুড়ে আতংকে আতংকিত হয়ে বসবাস করছে।

সম্পাদনা আনোয়ার হোসেন আলীরাজ/ আনোয়ার হোসেন আরিফ, নিউজরুম

শেয়ার করুন