রামুর তদন্ত প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করেছে বিএনপি

0
190
Print Friendly, PDF & Email

রুপসীবাংলা, ঢাকা ১৯ অক্টোবর :
রামুর ঘটনায় প্রশাসনিক (বিভাগীয়) তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করেছে বিএনপি। শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর খিলগাঁওয়ে জোড়াপুকুর খেলার মাঠে ১৮ দলীয় জোটের উদ্যোগে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বিএনপির ‘রামু সহিংসতা তদন্ত দলে’র আহবায়ক ব্যারিস্টার মওদুদ ‍আহমদ ওই প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করেন।
এমনকি আগামীতেও এ ধরনের সব তদন্ত রিপোর্ট বিএনপি প্রত্যাখ্যান করবে বলেও ঘোষণা করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই বর্ষীয়ান সদস্য। তিনি বলেন, “আমরা রামুর ঘটনায় একজন সাবেক প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে তদন্ত কমিটি গঠনের দাবি জানিয়েছিলাম। কিন্তু এর পরিবর্তে সরকার গঠন করেছে প্রশাসনিক (বিভাগীয়) কমিটি। এ কমিটির রিপোর্ট আমরা মানি না, এবং এটা প্রত্যাখ্যান করছি।”
এতে তিনি বলেন, “আগামীতেও সরকার যদি এ ধরনের কোনো তদন্ত কমিটি করে, সেই তদন্ত কমিটির রিপোর্টও আমরা মানবো না।”ব্যারিস্টার মওদুদ বলেন, “এই দলীয় সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন হবে না। নির্বাচন হতে হবে নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে। সেটা হলে জনগণের ভোটের অধিকার নিশ্চিত হবে।”
এ সরকারের দুর্নীতি, চাঁদাবাজি ও লুটপাটে জনগণ অতিষ্ট হয়ে পড়েছে উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, “সম্প্রতি বিশ্বব্যাংকের যে তদন্ত দলটি ঢাকায় এসেছিল, তারা বুঝতে পারেনি যে, দুদক সরকারের আজ্ঞাবহ।” তিনি বলেন, “দুদক সরকারের এতোটাই আজ্ঞাবহ যে দুর্নীতিবাজ মন্ত্রীদের ক্লিন সার্টিফিকেট দিয়েছে। কিন্তু বিশ্বব্যাংকের পরবর্তী যে দলটি আসবে তারা বিষয়টি ঠিকই বুঝতে পারবে। তখন বিশ্বব্যাংক আর ঋণ দেবে না।”
বিএনপি খিলগাঁও থানা সভাপতি ইউনূস মৃধার সভাপতিত্বে সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএনপির স্থানী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ, অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, বরকত উল্লাহ বুলু, জামায়াত নেতা অধ্যাপক মজিবুর রহমান প্রমুখ। উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার কক্সবাজারের রামু, উখিয়া, টেকনাফ ও চট্টগ্রামের পটিয়ায় বৌদ্ধবসতি ও বিহারে হামলার ঘটনায় গঠিত বিভাগীয় তদন্ত কমিটি প্রতিবেদনটি জমা দেয়।

নিউজরুম

শেয়ার করুন