বিশ্বব্যাংকের দুর্নীতির অপবাদে লজ্জিত ও অসম্মান বোধ করছি : নজরুল ইসলাম খান

0
127
Print Friendly, PDF & Email

রুপসীবাংলা, ঢাকা ১৮ অক্টোবর :
পদ্মাসেতুতে বিশ্বব্যাংকের দুর্নীতির অপবাদে লজ্জিত ও অসম্মান বোধ করছি বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান।
তিনি বলেন, ‘‘লজ্জা হয়, আন্তর্জাতিক অপরাধ তদন্ত প্যানেল বাংলাদেশের দুর্নীতি তদন্ত করতে আসে। এর আগেও এই সরকার দেশকে তলাবিহীন ঝুড়ি আর দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন করেছিল। এ মেয়াদেও দেশকে দুনীর্তিতে চ্যাম্পিয়ান করবেন তারা।’’ বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) সাবেক সভাপতি অধ্যাপক ডা. এম এ হাদীর ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ(ড্যাব) আয়োজিত স্মরণসভায় তিনি একথা বলেন।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘‘দুর্নীতির জন্য পদ্মাসেতু নির্মাণে দশ বিলিয়ন ডলার বেশি ব্যয় হলে সেই ঋণ আমার মাথায়ও পড়বে। এদেশের সাধারণ মানুষকে শোধ দিতে হবে। তাই পদ্মাসেতুর দুর্নীতির সঙ্গে কারা জড়িত তাদের নাম আমরা জানতে চাই।’’ নজরুল ইসলাম অভিযোগ করেন, ‘‘প্রতিদিন সীমান্তে মানুষ খুন হচ্ছে। কিন্তু তার কোনো প্রতিবাদ নেই। মানুষ দরিদ্র থেকে দরিদ্রতর হচ্ছে। আজকের পত্রিকায়ও হেডিং হয়েছে, চাঁদাবাজদের অত্যাচারে মানুষ রাতে ঘুমাতে পারে না। এর অবসান হওয়া দরকার। আমরা বসে থাকতে পারি না।’’

হলমার্ক কেলেঙ্কারির সঙ্গে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের লোক জড়িত উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘‘একটা ব্যাংকের একজন শাখা ব্যবস্থাপকের পক্ষে এতো বড় জালিয়াতি করা সম্ভব না। এর সঙ্গে রাঘববোয়ালরা জড়িত। আমরা এই লুটের বিচার চাই।’’
তিনি বলেন, ‘‘ডেসটিনিটিকে কারা মাথায় তুলে রেখেছিল? ডেসটিনি সাধারণ মানুষের লাখ লাখ কোটি টাকা লুটে নিয়েছে। এক এক জনের অ্যাকাউন্টে শত কোটি টাকা পাওয়া যাচ্ছে। তারা কতো টাকা বেতনে চাকুরি করতেন, তাও জানাতে হবে।’’
বিএনপি সন্ত্রাসী বা বিপ্লবী কোনো দল নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘‘আমরা দিনের পর দিন হরতাল করতে চাই না। জ্বালাও-পোড়াও রাজনীতিতে বিশ্বাসী না। এটাকে দুর্বলতা ভাবার কোনো কারণ নেই।’’
নজরুল বলেন, ‘‘বুধবার গণমিছিলে যারা এসেছিলেন, তারা সবাই বিএনপির লোক না। সাধারণ মানুষ এসেছিলেন। যারা এই সরকারের দুর্নীতি, চাঁদাবাজি, দখলবাজি, লুটপাটের অবসান চান। তারা এখন সরকারের পতন চান। তারা আন্দোলনের কর্মসূচি চান।’’ড্যাব সভাপতি ডা. একেএম আজিজুল হকের সভাপতিত্বে স্মরণসভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য শামসুজ্জামান দুদু, শওকত মাহমুদ, বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ, ড্যাব মহাসচিব ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, বিএসএমএমইউ’র সাবেক প্রো-ভিসি ডা. আবদুল আবদুল মান্নান প্রমুখ।

নিউজরুম

শেয়ার করুন