এবার ঈদে ছোট পর্দায় পূর্ণিমা

0
66
Print Friendly, PDF & Email

র্রপসীবাংলা,বিনোদন ডেস্ক :
পূর্ণিমা বাংলাদেশের একজন জনপ্রিয় চলচ্চিত্র অভিনেত্রী। তার পৈতৃক বাড়ি চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে। জন্ম এবং বেড়ে ওঠা ঢাকায়। পূর্ণিমার চলচ্চিত্র জগতে পথচলা শুরু হয়েছিল ১৯৯৭ সালে জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত `এ জীবন তোমার আমার` ছবির মাধ্যমে। এরপর বেশ কিছু চলচ্চিত্রে তার সফল উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়।
কথা ছিল পূর্ণিমা অভিনীত মোস্তফা কামাল রাজের পরিচালিত প্রথম সিনেমা ‘ছায়া-ছবি’ চলচ্চিত্রটি এবারের ঈদে মুক্তি পাবে। তবে শেষ পর্যন্ত তা এবারের ঈদে মুক্তি পাচ্ছে না। তবে পূর্ণিমা ভক্তদের নিরাশ হবার কিছু নেই। এবারের ঈদে পূর্ণিমা সরব থাকবেন ছোট পর্দায়।
ঈদের টেলিছবি ‘রং বেরং’ এর শুটিং শুরু হচ্ছে ১৫ অক্টোবর। এতে অভিনয় করছেন পূর্ণিমা। রুম্মান রশীদ খান-এর লেখা, কৌশিক শংকর দাশের পরিচালনায় এই টেলিছবিটি প্রচারিত হবে আসছে ঈদের অনুষ্ঠানমালায়, চ্যানেল আইতে। পূর্ণিমার বিপরীতে এই টেলিছবিতে অভিনয় করবেন নতুন অভিনেতা রিজভী।পূর্ণিম‍া এ বিষয়ে বলেন, “এই টেলিছবির প্রধান পুরুষ চরিত্রে একজন নতুন অভিনেতাকে প্রয়োজন ছিল। তাই নির্মাতা মঞ্চের একজন অভিনেতাকে ছোট পর্দায় প্রথমবার কাজ করার সুযোগ দিয়েছেন।”
রং বেরং ছাড়াও পূর্ণিমা অভিনীত রায়হান খান পরিচালিত নাটক ‘হারিয়ে তোমাকে’ প্রচারিত হবে চ্যানেল আইয়ে ঈদের ২য় দিন। এ নাটকে তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন ইমন। এছাড়া মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ পরিচালিত ‘অফ সাইড’ টেলিফিল্মটি প্রচারিত হবে চ্যানেল নাইনে।
শুধু তাই না, নতুন খবর হলো সম্প্রতি বিজ্ঞাপনে জুটিবদ্ধ হয়েছেন চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা ও মডেল-অভিনেতা তানভীর। ডিভাইন গ্রুপের জন্য করা এই বিজ্ঞাপনটি নির্দেশনা দিয়েছেন আনজাম মাসুদ। সম্প্রতি কক্সবাজার থেকে তিন দিন বিজ্ঞাপনটির দৃশ্যধারণ করা হয়। এখন চলছে এর পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ। অসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে এটি বিভিন্ন চ্যানেলে প্রচার শুরু হবে বলে জানা যায়। বিজ্ঞাপনটি সম্পর্কে পূর্ণিমা বলেন, অনেক সুন্দর একটি গল্প। ক্যামেরা থেকে শুরু করে লোকেশনে এতে অনেক ভেরিয়েশন আনা হয়েছে। আশা করছি দর্শকদের অন্যরকম ভালো লাগবে। আর তানভীর আমার সাথে বেশ ভালোভাবেই কাজ করেছে। পূর্ণিমা ও আরেফিন শুভ জুটির প্রথম চলচ্চিত্র ছায়া-ছবির শুটিং শুরু হয় গত মার্চ মাসে চট্টগ্রামে। শুটিং এর শুরুতেই মৌসুমীর লেখা এবং অভিজিত ও আকৃতির গাওয়া ‘মন যা বলে বলুক, আমি তোমারই হব’ গানটির মধ্য দিয়ে ছায়াছবি চলচ্চিত্রের দৃশ্য ধারণের কাজ শুরু হয়। এরপর ছবি চলচ্চিত্রের গানের অডিও অ্যালবাম বাজারে আসে। ছায়া-ছবি চলচ্চিত্রের এই অ্যালবামে দেশ-বিদেশের বেশ কয়েকজন কণ্ঠশিল্পীর গান রয়েছে।
এদের মধ্যে রয়েছেন ভারতের শান, অভিজিত, রাঘবচ্যাটার্জি,অন্বেষা ও বাংলাদেশের আরফিন রুমী, নিশিতা ও পড়শী। ছবিটি নিয়ে পূর্ণিমা বলেছেন, ‘অনেকদিন ধরে যে ধরনের চরিত্রে অভিনয়ের জন্য অপেক্ষা করেছিলাম । ছায়া-ছবিতে অভিনয়ের পর অ‍ামার মনে হয়েছে যে এরকম একটি ছবিতে অভিনয়ের জন্য অপেখা করছিলাম। আমি নিজে অভিনয় করে তুষ্ট, বাকিটা দর্শকরা বলবেন। চলচ্চিত্রের চলতি মন্দাবাজারে ২০১১ সালে পূর্ণিমা অভিনীত পর পর দুটি ছবি ব্যবসায়িক সাফল্যের মুখ দেখেছে। মোহাম্মদ আসলাম পরিচালিত ‘গরীবের মন অনেক বড়’ এবং শাহ আলম কিরণ পরিচালিত ‘মাটির ঠিকানা’ ছবি দুটিতেই পূর্ণিমার উপস্থিতি ছিল উজ্জ্বল।
এখানে আলাদাভাবে শাকিব খানের বিপরীতে ‘মাটির ঠিকানা’ ছবির কথা উল্লেখ না করলেই নয়। এখনকার ছবিতে শীর্ষনায়ক শাকিব খানের পর্দা উপস্থিতির কাছে নায়িকারা প্রায়ই ম্লান হয়ে যান। কিন্তু ‘মাটির ঠিকানা’ ছবিতে হয়েছে উল্টোটা।এ ছবিতে পূর্ণিমার আলোর কাছেই বরং খানিকটা ম্লান লেগেছে ঢালিউডের শীর্ষ নায়ককে। দর্শকরাও উপভোগ করেছে পূর্ণিমার অভিনয়। কিন্তু কাজ শেষ না হওয়ায় এবার ঈদের তা আর মুক্তি পাচ্ছে না। তাই আপাতত পূর্ণিমাকে ছোট পর্দায় দেখেই তার ভক্তদের সন্তুষ্ট থাকতে হবে।

শেয়ার করুন