পাবনা জেলা যুবলীগ সহ-সভাপতি খুন

0
196
Print Friendly, PDF & Email

রূপসীবাংলা পাবনা, ০৭ অক্টোবর:
পাবনা মাহফুজুর রহমান মাফু নামে জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি খুন হয়েছেন। শহরে হাউজপাড়া মোড়ে দুর্বৃত্তদের ধারালো অস্ত্রর আঘাতে তিনি খুন হন। সে শহরের চক পৈলানপুর মহলস্নার মনসুর রহমানের ছেলে।
মাহফুজুর রহমান ঠিকাদারী ব্যবসার সঙ্গে জড়িত ছিলেন। নিহত পরিবারের সদস্যদের দাবী ঠিকাদারী ব্যবসা নিয়ে বিরোধের জেরধরে তাকে হত্যা করা হয়েছে। পুলিশ সূত্র জানায়, মাফু শহরের কৃষপুর এলাকায় তার শশুর বাড়িতে থাকতো। ঘটনার দিন শনিবার রাত ৯ টার দিকে মাফু শহরের গোন্ডেল চাইনিজ হোটের সামনে বন্ধুদের সঙ্গে বসে আড্ডা দিচ্ছিল। এ সময় কয়েক যুবক তাকে মোবাইল ফোনে হাইজ পাড়া মোড়ে ডেকে নিয়ে যায়। সেখানে ওৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে এবং হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে জখম করে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে পাবনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। নিহতের বড় ভাই আব্দুর রাজ্জাক মাসুম জানান, মৃত্যুর পূর্বে মাহফুজুর তাদের জানিয়ে গেছেন, ঠিকাদারী ব্যবসা নিয়ে তার সঙ্গে স্থানীয়দের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিলো। বিরোধ নিস্পত্তির কথা বলে রনা, জনি ও শিমুল তাকে মোবাইল ফোনে ডেকে নেয়। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে পাবনা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জসিম উদ্দিন জানান, প্রাথমিক তদমেত্ম জানা গেছে, ঠিকাদারী ব্যবসা নিয়ে মাহফুজের সঙ্গে স্থানীয় একটি গ্রুপের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিলো। শনিবার রাত ৯ টার দিকে এই বিরোধ নিস্পত্তির কথা বলে তিন যুবক মাহফুজকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর রাত ১০টার দিকে স্থানীয়রা তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।
নিউজরুম

শেয়ার করুন